বাংলাদেশ বার কাউন্সিল

আইন, বিচার ও সংসদ বিষয়ক মন্ত্রণালয় ১৯/১২/২০১৮   ”এস,আর,ও, নং ৩৬৭-আইন/২০১৮।–Bangladesh Legal Practitioners and Bar Council Rules, 1972-এর সংশোধন প্রসঙ্গে” শিরোনামে প্রজ্ঞাপন প্রকাশ করে।

রাষ্ট্রপতির আদেশক্রমে যুগ্ম সচিব বিকাশ কুমার সাহা স্বাক্ষরিত প্রজ্ঞাপনটি উল্লেখ্য যে, আইনজীবী হিসেবে তালিকাভুক্ত হতে প্রার্থীকে বার কাউন্সিল কতৃক স্বীকৃত শিক্ষাগতযোগ্যতা অর্জন এবং  প্রিলিমিনারি (MCQ), লিখিত ও মৌখিক পরীক্ষায়  উত্তীর্ণ  হতে হবে। প্রার্থীকে ১ ঘন্টা সময়ে ১০০টি এমসিকিউ এর উত্তর লিপিবদ্ধ করতে হবে,  যার পূর্ণমান ১০০ নম্বর।  প্রিলিমিনারি পরীক্ষায় যে সকল প্রার্থী ১০০ নম্বরের মধ্যে নূন্যতম ৫০ নম্বর পেয়ে উত্তীর্ণ হবেন, তারা পরবর্তী দুইটি লিখিত পরীক্ষায়  অংশগ্রহনের মাধ্যমে আইনজীবী হিসেবে তালিকাভুক্ত হতে সুযোগ পাবেন  এবং প্রিলিতে অকৃতকার্য প্রার্থীর ফলাফল স্থগিত করা হবে।

এতএব প্রিলিতে অকৃতকার্য প্রার্থী লিখিত পরীক্ষায় অংশগ্রহণের সুযোগ হারাবেন। যারা ইতিপূর্বে আইনজীবী তালিকাভুক্তি প্রিলি পরীক্ষায় পাশ করে লিখিত পরীক্ষা দিয়েছেন তাদেরকে পুনরায় প্রিলি দিতে হবে না।

অ্যাডভোকেটশীপ প্রিলিমিনারিতে পাশকৃত শিক্ষার্থীদের মিলবে দুইবার লিখিত পরিক্ষায় অংশগ্রহণের সুযোগ - গেজেট প্রকাশিত

পূর্বে আইনজীবী তালিকাভুক্তির প্রিলিমিনারি (MCQ) পরীক্ষায় উত্তীর্ণ প্রার্থীরা কেবল একবারই লিখিত পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করতে পারতেন যা এখন সংশোধন করে দুইবার করা হচ্ছে। এটি অবিলম্বে কার্যকর করা হবে বলে প্রজ্ঞাপনের মাধ্যমে জানানো হয়।